৯ জানুয়ারি ২০১৫

খবরকাগজ
  • পিঠেপুলি

    -----আশুতোষ ভট্টাচার্য


    আয়েস করে পায়েস খেয়ে নন্দখুড়ো বলে
    মিলিয়ে নিবি দেশটা দেখিস যাবেই রসাতলে
    কোক,পেপসি পাস্তা,পিজা খুব পপুলার খাদ্য
    পেস্ট্রি,প্যাটিস নাতির প্রিয় যাচ্ছে কলেজ সদ্য


    ইচ্ছেমতো সবাই ভেজাল মেশায় নলেন গুড়ে
    মাজদিয়া,কি বনগাঁ,গেদে শহর থেকে দূরে!!!!!

    সারি সারি খেজুর গাছে ঝুলিয়ে রসের হাঁড়ি
    হালকা আঁচে জ্বাল দেবে রস ব্যাপারটা ঝকমারি,
    ‘শিউলি’ রসে-সকাল বিকেল এক্কেবারে দেশি
    সাঁঝের বেলা বলছি শোনো সুস্বাদু হয় বেশি,
    তবেই দেখো গুড় কাহিনী কঠিন রসায়নে
    রসিক মানুষ বুঝবে কেবল পায়েস পিঠের মানে!

    পিঠেপুলি বর্ষবরণ পার্বণে উৎসবে
    মেলায় না হয় আয়েশ করে ইচ্ছেমত খাবে
    সাতসকালে চাদর মুড়ি সঙ্গে নলেন গুড়ে


    নারকেলে ও নতুন চালে সুবাস পায়েস ক্ষীরে;
    এসব হরেক উপকরণ সঠিক হাতের মাপে;
    কায়দা আছে মিশবে সে'সব সামান্য উত্তাপে
    তবেই হবে সত্যি পিঠে স্বর্গীয় সুস্বাদু
    বলবে লোকে সেলাম ম্যাডাম তোমার হাতে জাদু;

    এসব ভারী ঝুট ঝামেলা দেখিস গুগুল ঘেঁটে


    অর্ডার দিবি অনলাইনে ওয়েবসাইট নেটে;
    নিত্যনতুন হরেক পিঠে হরেকরকম ছবি
    মূল্য দেখে ভিরমি খাবি নয়তো অবাক হবি,
    মালপোয়া কি চিতই পিঠে কিংবা মুগের পুলি
    জেলুসিলের বোতল?রাখিস আয়ুর্বেদিক গুলি
    বললে হবে? খরচ আছে, উঠল পিঠে জাতে,
    বন্ধুরা সব খেতাম পিঠে সংক্রান্তির রাতে;

    পুলির আবার অনেক রকম মা ঠাকুমার হাতে
    মুগের পুলি,দুধের পুলি সংক্রান্তির রাতে
    পাটিসাপটা সঙ্গে ছিলো জয়নগরের মোয়া
    আঙ্গুর পিঠে,চন্দ্রকাঠে মায়ের হাতের ছোয়া
    সেসব অনেক আগের কথা অনেক বছর আগে
    স্বপ্ন বুঝি সত্যি হবে হঠাত্ কেমন লাগে!!